সকল মেনু

সাইফ পাওয়ার: রেলওয়ে কন্টেইনার টার্মিনাল থেকে বছরে মুনাফা হবে ৬৪৯ কোটি টাকা

সিনিয়র রিপোর্টার : চট্টগ্রাম বন্দরের কাছে ট্রেনে পণ্য বহনের জন্য রেলওয়ের জমিতে মাল্টি মডেল কন্টেইনার টার্মিনাল কাম অফ-ডক নির্মাণ করবে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত সাইফ পাওয়ারটেক লিমিটেড। দেশের প্রথম রেলওয়ে কন্টেইনার টার্মিনাল নির্মাণের জন্য সাইফ লজিস্টিক অ্যালায়েন্স লিমিটেড নামে নতুন একটি সাবসিডিয়ারি কোম্পানি করেছে কোম্পানিটি। ২০ বছর মেয়াদি মাল্টি মডেল কন্টেইনার টার্মিনাল থেকে বছরে ৬৪৯ কোটি টাকা নিট মুনাফা হবে বলে জানিয়েছে সাইফ পাওয়ার।

টার্মিনাল ও অফ-ডক নির্মাণে ২০২১ সালের ২০ অক্টোবর বাংলাদেশ রেলওয়ের অধীনস্ত কোম্পানি কন্টেইনার কোম্পানি অব বাংলাদেশ লিমিটেড (সিসিবিএল) ও সাইফ পাওয়ারের সাবসিডিয়ারি সাইফ লজিস্টিকস অ্যালায়েন্সের মধ্যে চুক্তি স্বাক্ষর হয়েছে। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে ছিলেন রেলমন্ত্রী মো. নুরুল ইসলাম সুজন। আর সভাপতিত্ব করেন রেল মন্ত্রণালয়ের সচিব ও সিসিবিএলের চেয়ারম্যান মো. সেলিম রেজা।

চুক্তি অনুযায়ী, সাইফ লজিস্টিকস চট্টগ্রামে রেলের ২১ দশমিক ২৯ একর জমিতে ২০ বছর মেয়াদি মাল্টি মডেল কন্টেইনার টার্মিনাল কাম অফ-ডক নির্মাণ করবে। যা দিয়ে দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে চট্টগ্রামের মাধ্যমে রেলে কন্টেইনারে পণ্য সরবরাহ করা হবে। এতে যে পরিমাণ আয় হবে, তা সাইফ লজিস্টিকস ও সিসিবিএলের মধ্যে ভাগ হবে।

এক্ষেত্রে যে রাজস্ব আয় হবে, সেখান থেকে রয়্যালিটি বাবদ একটি অংশ প্রতি প্রান্তিকে সিসিবিএলকে দেবে সাইফ লজিস্টিক। এর বাইরে মুনাফার একটি অংশও সরকারি প্রতিষ্ঠানকে দেওয়া হবে। তবে মুনাফার ঠিক কী পরিমাণের অংশ দেওয়া হবে, তা নিশ্চিত করতে পারেননি সাইফ পাওয়ারের কোম্পানি সচিব এফ. মো. সালেহীন।

চুক্তি স্বাক্ষরের পর এক মূল্য সংবেদনশীল তথ্যে সাইফ পাওয়ার কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে যে, সাবসিডিয়ারি কোম্পানি সাইফ লজিস্টিক অ্যালায়েন্সের ৮০ শতাংশের মালিকানা নেবে সাইফ পাওয়ার। অবশিষ্ট ২০ শতাংশ নেবে ই-ইঞ্জিনিয়ারিং লিমিটেড। প্রাথমিকভাবে ওই সাবসিডিয়ারিতে ৪০ কোটি টাকা বিনিয়োগ করবে সাইফ পাওয়ার।

মাল্টি মডেল কন্টেইনার টার্মিনাল কাম অফ-ডক নির্মাণ প্রকল্পে আনুমানিক ৩০৮ কোটি টাকা ব্যয় হবে। প্রকল্পটি বাস্তবায়নের পর বছরে প্রায় সাড়ে ৩ হাজার কোটি টাকা রাজস্ব আয় হবে। আর বছরে নিট মুনাফা হবে আনুমানিক ৬৪৯ কোটি টাকা।

চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে রেলমন্ত্রী মো. নুরুল ইসলাম সুজন বলেন, পৃথিবীর কোথাও শুধু যাত্রী বহন করে মুনাফা করা সম্ভব না। এজন্য পণ্য পরিবহন করা দরকার হয়। এই চুক্তির মাধ্যমে উভয় প্রতিষ্ঠান লাভবান হবে। এছাড়া সাইফ গ্রুপ কন্টেইনার পরিবহনে অভিজ্ঞ। তাদের হাত ধরে ভবিষ্যতে ভালো কিছু হবে বলে আশা করছি।

সভাপতির বক্তব্যে রেল মন্ত্রণালয়ের সচিব ও সিসিবিএলের চেয়ারম্যান মো. সেলিম  রেজা বলেন, পণ্য পরিবহনের কাজের জন্য সিসিবিএল গঠন করা হয়েছে। এখন সিসিবিএলের সঙ্গে চুক্তির মাধ্যমে সাইফ লজিস্টিকস টার্মিনাল তৈরি করবে। যেখান থেকে কন্টেইনার সঠিকভাবে সঠিক জায়গায় পাঠানো হবে। এতে করে উভয় প্রতিষ্ঠান লাভবান হবে। এছাড়া দেশের অর্থনীতিতে এই টার্মিনাল ভূমিকা রাখবে।

সাইফ লজিস্টিকসের চেয়ারম্যান রুহুল আমিন তালুকদার বলেন, চট্টগ্রামে রেলের জমিতে কন্টেইনার টার্মিনাল নির্মাণের মাধ্যমে চট্টগ্রাম বন্দরের সক্ষমতা বাড়বে। এটাই হবে দেশের প্রথম রেলওয়ে কন্টেইনার টার্মিনাল। এই সুযোগ করে দেওয়ার জন্য সিসিবিএল কর্তৃপক্ষকে ধন্যবাদ জানান তিনি।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, কর্তৃপক্ষ এর দায়ভার নেবে না।

top