সকল মেনু

গ্লোবাল ইসলামী ব্যাংকের আইপিও আবেদন ১৬ অক্টোবর থেকে

স্টাফ রিপোর্টার: বাংলাদেশের পুঁজিবাজারে ব্যাংক খাতে তালিকাভুক্ত হতে যাওয়া গ্লোবাল ইসলামী ব্যাংকের আইপিওর শেয়ার পেতে হলে আবেদন করতে হবে ১৬ অক্টোবর থেকে।

সোমবার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) ওয়েবসাইটে জানানো হয়েছে, গ্লোবাল ইসলামী ব্যাংকের আইপিওর শেয়ার পেতে ১৬ থেকে ২০ অক্টোবর পর্যন্ত আবেদন করা যাবে।

এই সময়ের মধ্যে সাধারণ বিনিয়োগকারীরা ও অনিবাসী বাংলাদেশি নাগরিক আবেদন করতে পারবেন।

এই ক্ষেত্রে সাধারণ বিনিয়োগকারীরা ও অনিবাসী বাংলাদেশি নাগরিক সর্বনিম্ন ১০ হাজার টাকার থেকে সর্বোচ্চ ৫০ হাজার টাকার শেয়ার পাওয়ার জন্য আবেদন করতে পারবেন। আবেদন ১০ হাজার টাকার কম বা ৫০ হাজার টাকার বেশি হতে পারবে না।

সাধারণ বিনিয়োগকারীদের ক্ষেত্রে শর্ত হলো তালিকাভুক্ত শেয়ারে ন্যূনতম ৫০ হাজার টাকার বিনিয়োগ থাকতে হবে, তবেই তারা এই শেয়ারের আইপিও পেতে আবেদন করতে পারবেন।

আর অনিবাসী বাংলাদেশি নাগরিকদের তালিকাভুক্ত শেয়ারে ন্যূনতম ১ লাখ টাকার বিনিয়োগ থাকতে হবে। তবেই তারা এই শেয়ারের আইপিও পেতে আবেদন করতে পারবেন।

সাধারণ বিনিয়োগকারী ও অনিবাসী বাংলাদেশি নাগরিকদের এই শেয়ারের আইপিও পেতে আবেদন করতে হবে ব্রোকারেজ হাউস বা মার্চেন্ট ব্যাংকের মাধ্যমে।

গত ১৫ জুন বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) গ্লোবাল ইসলামী ব্যাংককে ফিক্সড প্রাইজ পদ্ধতিতে পুঁজিবাজার থেকে ৪২৫ কোটি টাকা তোলার অনুমোদন দেয়।

গ্লোবাল ইসলামী ব্যাংকের শেয়ারের দাম ধরা হয়েছে ১০ টাকা। সব মিলিয়ে ৪২ কোটি ৫০ লাখ শেয়ার বিক্রি করে ৪২৫ কোটি টাকা তুলবে গ্লোবাল ইসলামী ব্যাংক।

ব্যাংকটি ৪২৫ কোটি টাকার মধ্যে ১০০ কোটি টাকা এসএমইতে বিনিয়োগ করবে, ২৬৮ কোটি ৫০ লাখ টাকা সরকারি বন্ডে বিনিয়োগ করবে, ৫০ কোটি টাকা তালিকাভুক্ত শেয়ারে বিনিয়োগ করবে আর ৬ কোটি ৫০ লাখ টাকা আইপিও টাকা তোলা বাবদ খরচ করবে।

২০১৩ সালে নিবন্ধন পায় গ্লোবাল ইসলামী ব্যাংক। ব্যাংকটি ২০১৮ সালে মুনাফা করেছে ৫৩ কোটি ৩ লাখ টাকা, ২০১৯ সালে মুনাফা করেছে ৩৬ কোটি ৭০ লাখ টাকা, ২০২০ সালে মুনাফা করেছে ১০২ কোটি ৯৩ লাখ টাকা ও ২০২১ সালে মুনাফা করেছে ৯৮ কোটি ৫৪ লাখ টাকা।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, কর্তৃপক্ষ এর দায়ভার নেবে না।

top