সকল মেনু

পুঁজিবাজারে শরিয়াহ কাউন্সিল গঠনে বিধিমালা জারি

স্টাফ রিপোর্টার: ইসলামী শরিয়াহভিত্তিক সিকিউরিটিজ বা শেয়ার, সুকুক (শরিয়াহ বন্ড) ইত্যাদির বাজার গড়ার জন্য শরিয়াহ অ্যাডভাইজরি কাউন্সিল থাকা প্রাথমিক শর্ত। এ শর্ত পূরণে প্রয়োজনীয় বিধিমালা (রুলস) জারি করেছে পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিএসইসি।

রোববার এর গেজেট প্রকাশ করেছে সংস্থাটি। এ বিধিমালা অনুযায়ী শরিয়াহ কাউন্সিল সার্বক্ষণিক হবে না। কমিশনের অনুরোধে তার কার্যক্রম পরিচালিত হবে।

সরকারি গেজেট অনুযায়ী পাঁচজন শরিয়াহ বিশেষজ্ঞসহ মোট ৯ জনকে নিয়ে শরিয়াহ অ্যাডভাইজরি বা পরামর্শক কাউন্সিল গঠন করবে বিএসইসি। ফিকাহ বা উসুল আল ফিকাহর ওপর অগাধ জ্ঞানসহ দাওরা-ই-হাদিস (তাকমিল) বা কামিল বা ইসলামিক স্টাডিজ, ফিকাহ, ইসলামিক আইন বা আইনশাস্ত্রে স্নাতকোত্তর ডিগ্রিধারীরা শরিয়াহ বিশেষজ্ঞ হিসেবে কাউন্সিল সদস্য হিসেবে নিয়োগযোগ্য হবেন।

কাউন্সিলের বাকি সদস্যদের ব্যবসা, আইন, ব্যাংকিং, হিসাব ব্যবস্থা ইসলামিক অর্থায়ন ব্যবস্থা বিষয়ে পাণ্ডিত্য থাকতে হবে। কাউন্সিল সদস্যরা একবারে ৩ বছরের জন্য নিয়োগ পাবেন এবং পরপর দুই মেয়াদে দায়িত্ব পালন করতে পারবেন। তবে বিএসইসি চাইলে এক মেয়াদ বাদে পুনরায় নিয়োগ নিতে পারবে।

কাউন্সিলের প্রাথমিক দায়িত্ব হবে শরিয়াহভিত্তিক সিকিউরিটিজ অনুমোদনের জন্য কমিশনের জন্য পরামর্শক হিসেবে এবং ইসলামিক সিকিউরিটিজ বাজারের লেনদেন তদারকি।

এ ছাড়া বাজার-সংক্রান্ত ইস্যুতে কাউন্সিল শরিয়াহভিত্তিক সিদ্ধান্ত, নীতিমালা ও ঘোষণা করতে পারবে। শরিয়াহভিত্তিক সিকিউরিটিজ বাজারের পণ্য ও নীতি এবং সূচক নির্ধারণ পদ্ধতি অনুমোদন করতে পারবে।

বিশ্বের অন্যান্য ইসলামিক সিকিউরিটিজ বাজারের পাশাপাশি ইন্টারন্যাশনাল ইসলামিক ফিকাহ একাডেমি, অ্যাকাউন্টিং অ্যান্ড অডিটিং অর্গানাইজেশন ফর ইসলামিক ফাইন্যান্সিয়াল ইনস্টিটিউটস এবং দ্য ইসলামিক ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিসেস বোর্ডের কার্যক্রম পর্যবেক্ষণ ও পর্যালোচনা বাংলাদেশে এমন বাজারের জন্য প্রয়োজনীয় নীতি গ্রহণ এবং মান নির্ধারণ করবে।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, কর্তৃপক্ষ এর দায়ভার নেবে না।

top