সকল মেনু

পতনের পর সপ্তাহের শেষ দিনে লেনদেন হাজার কোটি নিচে

ঢাকা: টানা পাঁচদিন দর পতনের পর সপ্তাহের শেষ কর্মদিবস বৃহস্পতিবার (২০ অক্টোবর) সূচক বেড়েছে দেশের পুঁজিবাজারে। দিনভর অস্থিরতা শেষে এ দিন সূচক বাড়লেও কমেছে লেনদেন হওয়া অধিকাংশ কোম্পানির শেয়ারের দাম ও লেনদেন।

এদিন লেনদেন হওয়া ৩৬৩টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে অপরিবর্তিত ছিল ২২৫টি কোম্পানির শেয়ার ও ইউনিটের দাম। যার বেশির ভাগই আটকা রয়েছে ফ্লোর প্রাইসের মধ্যে। এ কারণে লেনদেন কমতে কমতে আজ বৃহস্পতিবার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) ৯৭৫ কোটি টাকায় নেমে এসেছে। অপর বাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) লেনদেন হয়েছে ২৬ কোটি টাকা।

বাজার সংশ্লিষ্টরা বলছেন, সারাবিশ্বের অর্থনৈতিক মন্দার শঙ্কার প্রভাব দেশের পুঁজিবাজারেও পড়েছে। এ কারণে পুঁজিবাজারে বিক্রেতার চেয়ে ক্রেতার সংখ্যা কম। পাশাপাশি প্রায় ২০০ শতাধিক কোম্পানির শেয়ার ফ্লোর প্রাইসের মধ্যে আটকা পড়ে আছে। এ কারণে লেনদেন ক্রমাগতভাবে কমছে।

ডিএসইর তথ্য মতে,আজ ৩৬৩টি প্রতিষ্ঠানের মোট ১৩ কোটি ২০ লাখ ৫৩ হাজার ৬০টি শেয়ার ও ইউনিট কেনাবেচা হয়েছে, যার মূল্য ৯৭৫ কোটি ৬২ লাখ ৮৭ হাজার টাকা। আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয়েছিল ১ হাজার ১১৭ কোটি ৮৭ লাখ ২ হাজার টাকা। অর্থাৎ আগের দিনের চেয়ে লেনদেন কমেছে।

এদিন ৬০টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম বেড়েছে, কমেছে ৭৮টির। অপরিবর্তিত রয়েছে ২২৫টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ারের দাম। লেনদেন হওয়া অধিকাংশ কোম্পানির শেয়ারের দাম কমার দিনে ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ২ পয়েন্ট বেড়ে ৬ হাজার ৩৯২ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। প্রধান সূচক বাড়লেও ডিএসইএস শরিয়াহ সূচক দশমিক ৫২ পয়েন্ট কমে ১ হাজার ৪০৭ পয়েন্টে এবং ডিএস-৩০ সূচক ৬ পয়েন্ট বেড়ে২ হাজার ২৭৭ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে।

বৃহস্পতিবার লেনদেনের শীর্ষে ছিল বেক্সিমকো লিমিটেডের শেয়ার। দ্বিতীয় স্থানে ছিল ওরিয়ন ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেডের শেয়ার। তৃতীয় স্থানে ছিল আনোয়রা গ্যালভানাইজিংয়ের শেয়ার। এরপরের অবস্থানে ছিল- ইস্টার্ন হাউজিং, জিমিনী সী ফুড, কেডিএস এক্সেসোরিজ, জেএমআই হাসপাতাল, এডিএন টেলিকম, সোনালী পেপার এবং বাংলাদেশ শিপিং করপোরেশনের শেয়ার।

এদিন ডিএসইতে সূচক বাড়লেও অপর বাজার সিএসইতে কমেছে। সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ২০ পয়েন্ট কমে ১৮ হাজার ৮০০ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। এই বাজারে ২০১টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে ৩৪টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ারের দাম বেড়েছে, কমেছে ৭৬টির। অপরিবর্তিত রয়েছে ৯১টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ারের দর।

সিএসইতে লেনদেন হয়েছে ২৬ কোটি ২৯ লাখ ৩৩ হাজার ২৫৫ টাকার শেয়ার। এর আগের দিন লেনদেন হয়েছিল ৪১ কোটি ৬৫ লাখ ৬৩ হাজার ৮৪২ টাকার শেয়ার।

নিউজজি/শানু

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, কর্তৃপক্ষ এর দায়ভার নেবে না।

top