সকল মেনু

ব্যাংক এবং অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট পুঁজিবাজারে বিনিয়োগ বাড়াবে

স্টাফ রিপোর্টার: বর্তমান সংকট থেকে উত্তোলনে পুঁজিবাজারে বিনিয়োগ বাড়াবে বাণিজ্যিক ব্যাংক, মার্চেন্ট ব্যাংক এবং অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট কোম্পানিগুলো।

বৃহস্পতিবার, ১৭ আগস্ট বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) পুঁজিবাজারে বিনিয়োগকারীদের আস্থা বৃদ্ধি, বন্ড মার্কেট ও পুঁজিবাজারের উন্নয়নে করণীয় সংক্রান্ত সভায় এ তথ্য জানান প্রতিষ্ঠানগুলোর প্রতিনিধিরা।

বিএসইসির কমিশনার ড. শেখ শামসুদ্দিন আহমেদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে ব্রাক ব্যাংকের সিইও ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক সেলিম আর এফ হোসেন, শান্তা অ্যাসেট ম্যানেজমেন্টের ভাইস চেয়ারম্যান আরিফ খান, ইবিএল সিকিউরিটিজের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ছায়েদুর রহমান, স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মুহিত রহমান, সিটি ব্যাংকের এএমডি ও সিএফও মো মাহবুবুর রহমানসহ সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

সভায় সবাইকে বিনিয়োগের আহ্বান জানিয়ে ড. শেখ শামসুদ্দিন আহমেদ বলেন, বিশ্বজুড়ে বন্ড মার্কেট দীর্ঘমেয়াদি অর্থায়নের যোগানে গুরুত্বপূর্ণ উৎস হিসেবে প্রতিষ্ঠিত এবং বাংলাদেশের বাজারেও এর জন্য রয়েছে অনেক সুযোগ ও সম্ভাবনা।

দেশের পুঁজিবাজারের উন্নয়নে বন্ড বাজারকে আরো টেকসই রূপ দেওয়া এবং বন্ডের মাধ্যমে দীর্ঘমেয়াদি অর্থায়নের সম্ভাবনাকে কাজে লাগানোর কথা বলেন বিএসইসি কমিশনার।

এছাড়া বন্ড ইস্যুর প্রক্রিয়ায় বিদ্যমান নানা সমস্যা সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা হয় এবং এই প্রক্রিয়ার সহজীকরণের জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিয়ে আলোচনা হয়। বন্ড মার্কেট জনপ্রিয় না হওয়ার পেছনের কারণ এবং বিদ্যমান সমস্যাগুলো সমাধানের বিষয়ে সভায় সবাই মতামত দেন।

সভায় আলোচকরা বলেন, দেশের পুঁজিবাজারে শক্তিশালী বন্ডের বাজার প্রতিষ্ঠার জন্য সম্ভাব্য বিনিয়োগকারীদের চিহ্নিত করে তাদের বন্ডে বিনিয়োগে আগ্রহী করতে হবে। এছাড়া বৃহৎ করপোরেট প্রতিষ্ঠানগুলোকে বন্ড ইস্যুর মাধ্যমে অর্থায়নের সুযোগ কাজে লাগাতে সচেতন ও আগ্রহী করতে কাজ করতে হবে।

এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, দেশে শক্তিশালী ও নির্ভরযোগ্য বন্ড বাজার প্রতিষ্ঠায় দীর্ঘদিন ধরে কাজ করছে বিএসইসি। কর্পোরেট বন্ডের পাশাপাশি পরিবেশবান্ধব গ্রিন বন্ড ব্লু বন্ড ইত্যাদি টেকসই বন্ড নিয়ে আসার পরিকল্পনায় কাজ চলছে। সাম্প্রতিক সময়ে দেশে পরিবেশবান্ধব ও টেকসই বন্ড নিয়ে আসার জন্য প্রয়োজনীয় অবকাঠামো ও পলিসিগত উন্নয়নের জন্য কাজ করেছে বিএসইসি।

বিএসইসি আরও জানিয়েছে, দেশের বন্ড বাজারের উন্নয়নে সরকার সহায়ক ভূমিকায় রয়েছে এবং অর্থ মন্ত্রণালয়, বাংলাদেশ ব্যাংক, এনবিআরসহ সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানগুলোকে সঙ্গে নিয়ে আইএমএফ, বিশ্বব্যাংক ও আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলোর সঙ্গে সমন্বিত উদ্যোগে কার্যক্রম চলমান রয়েছে। এছাড়া বন্ড মার্কেটের উন্নয়নের মাধ্যমে দেশে দীর্ঘমেয়াদি অর্থায়নের সুযোগ ও সম্ভাবনা বৃদ্ধি পাবে।

একই দিন অ্যাসেট ম্যানেজার এবং ফান্ড ম্যানেজারদের সঙ্গে বিএসইসির বিশেষ সভা অনুষ্ঠিত হয়। বিএসইসির কমিশনার ড. মিজানুর রহমানের সভাপতিত্বে সভায় বর্তমান বাজার পরিস্থিতিসহ দেশের পুঁজিবাজারে বিদ্যমান মিউচুয়াল ফান্ডের উন্নয়ন এবং পুঁজিবাজার বিনিয়োগের নানা দিক নিয়ে আলোচনা হয়।

বিএসইসির কমিশনার ড. মিজানুর রহমান উপস্থিত ফান্ড ম্যানেজার ও অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট কোম্পানিগুলোকে বিনিয়োগকারীদের স্বার্থরক্ষা করে এবং সুষ্ঠু প্রক্রিয়া অনুসরণ করে কার্যক্রম পরিচালনা করার নির্দেশনা দেন।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, কর্তৃপক্ষ এর দায়ভার নেবে না।

top