সকল মেনু

‘ইএফডিএমএস দেশের রাজস্ব আহরণকে আরও গতিশীল করবে’

স্টাফ রিপোর্টার: ইলেক্ট্রনিক ফিসক্যাল ডিভাইস ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম (ইএফডিএমএস) দেশের রাজস্ব আহরণকে আরও গতিশীল করে তুলবে বলে মন্তব্য করেছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল।

তিনি বলেছেন, পুরো বিশ্ব এখন অটোমেশনের দিকে ঝুঁকেছে। ভারত’সহ আরও অনেক দেশে ভ্যাট আহরণের জন্য অটোমেশনের ব্যবহার করা হচ্ছে। এতে রাজস্ব আহরণের গতি বৃদ্ধি পাবে।

মঙ্গলবার, ২২ আগস্ট রাজধানীর রাজস্ব বোর্ড এর মাল্টিপারপাস হলে অনুষ্ঠিত ভ্যাট আদায়ের ইলেক্ট্রনিক ফিসক্যাল ম্যানেজমেন্ট সিস্টেমের (ইএফডিএমএস) উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে অর্থমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেন, আমরা যখন শুরু করেছিলাম বাজেটের আকার তার থেকে এখন ১০ গুন বেড়েছে। গত ১৫ বছরে দেশে অনেক নতুন কর্মসংস্থান তৈরি করেছে সরকার। যার ফলে বেড়েছে বাজেট এবং বৃদ্ধি পেয়েছে ভ্যাট আহরণ। তাই আমি ২০১৯ সালের বাজেট বক্তৃতায় ভ্যাট-ট্যাক্স আহরণ অটোমেশনের কথা বলেছিলাম।

জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) চেয়ারম্যান আবু হেনা মো. রহমাতুল মুনিম বলেন, এই অটোমেশনের মাধ্যমে ব্যবসায়ীরা ঘরে বসেই এই মেশিনের মাধ্যমে ভ্যাট দিতে পারবে। একজন দোকান মালিক এই সিস্টেমটির মাধ্যমে জানতে পারবেন তার দোকানে বেচাকেনার অবস্থা কি। ঘরে বসেই তিনি দেখতে পারবেন তার দোকানে কি কি বেচাকেনা হচ্ছে৷

এনবিআর চেয়ারম্যান বলেন, ভ্যাট প্রদান এবং আহরণ করার উন্নততর ব্যবস্থা ইলেক্ট্রনিক ফিসক্যাল ডিভাইস ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম (ইএফডিএমএস)। এটি দেশে ব্যবসায়ী পর্যায়ে ভ্যাট আহরণে ভ্যাট ব্যবস্থাপনায় শৃঙ্খলা প্রতিষ্ঠায় অগ্রণী ভূমিকা পালন করবে বলে আমাদের বিশ্বাস।

তিনি আরও বলেন, ডিজিটালাইজড ভ্যাট ব্যবস্থাপনা মাধ্যমে বিশ্বে স্মার্ট ভ্যাট আহরণকারী প্রতিষ্ঠান হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করতে চায় এনবিআর। দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। বড় অর্থনীতির দেশ হিসেবে নিজেদেরকে প্রতিষ্ঠিত করার স্বপ্ন ও চ্যালেঞ্জ নিয়ে সরকার কাজ করছে। এমন অবস্থায় ভ্যাট-ট্যাক্স প্রদান ও আহরণ ব্যবস্থা উন্নতকরণের বিকল্প নেই।

জেনেক্স ইনফোসিস লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (ভারপ্রাপ্ত) ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা শাহ্ জালাল উদ্দিন বলেন, ভ্যাট ব্যবস্থাপনা ডিজিটালাইজেশনের মাধ্যমে শুধু সরকারের রাজস্বই বৃদ্ধি পাবে না বরং টেকসই অর্থনীতির পথেও দেশ এগিয়ে যাবে। ইএফডিএমএস ব্যবসায় উৎপাদনশীলতা বাড়াতে এবং হিসাব শৃঙ্খলা নিশ্চিতে সহায়তা করবে।

তিনি বলেন ব্যবসায়ীরা বিভিন্ন সময় যে জটিলতা ও চ্যালেঞ্জের সম্মুখীন হন তা এ ডিভাইস ব্যবহারের মাধ্যমে অনেকাংশে দূর হয়ে যাবে। ভ্যাট সংগ্রহে আমরা এনবিআরের সহযোগী প্রতিষ্ঠান হিসেবে কাজ করেছি। বেসরকারি অংশীদারিত্বের ভিত্তিতে পুরো সলিউশনটির ইনফাস্ট্রাকচার বাস্তবায়ন করতে পেরে আমরা আনন্দিত। প্রাথমিকভাবে ঢাকা ও চট্টগ্রামে প্রতি বছরে ৬০ হাজার করে পাঁচ বছরে তিন লাখ ইএফডিএমএস মেশিন বসানো হবে। এর মাধ্যমে স্মার্ট বাংলাদেশের রূপকল্প আরও গতিশীল হবে।

এ সময় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ফাতিমা ইয়াসমিন, সিনিয়র সচিব, অর্থ বিভাগ এবং মাহবুবুল আলম, প্রেসিডেন্ট, এফবিসিসিআই। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য এবং মূল উপস্থাপনা করেন ড. মইনুল খান, সদস্য (মূসক বাস্তবায়ন ও আইটি), জাতীয় রাজস্ব বোর্ড।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, কর্তৃপক্ষ এর দায়ভার নেবে না।

top