সকল মেনু

তিন মাসে স্কয়ার ফার্মার মুনাফা ৪৭২ কোটি টাকা

সিনিয়র রিপোর্টার: চলতি বছরের প্রথম তিন মাসে ৪৭২ কোটি টাকা কর–পরবর্তী মুনাফা করেছে দেশের শীর্ষস্থানীয় ওষুধ কোম্পানি স্কয়ার ফার্মা। আগের বছরের একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ৪২৫ কোটি টাকা। সেই হিসাবে এক বছরের ব্যবধানে কোম্পানিটির মুনাফা ৪৭ কোটি টাকা বা ১১ শতাংশ বেড়েছে।

এ ছাড়া চলতি ২০২৩–২৪ অর্থবছরের প্রথম ৯ মাসে এ মুনাফার পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ৫৯০ কোটি টাকা। আগের অর্থবছরের একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ১ হাজার ৪৭৪ কোটি টাকা। ৯ মাসের হিসাবে কোম্পানিটির মুনাফা বেড়েছে ১১৬ কোটি টাকা বা ৮ শতাংশ। সোমবার কোম্পানিটির পরিচালনা পর্ষদের সভায় তৃতীয় প্রান্তিকের (জুলাই–মার্চ) আর্থিক প্রতিবেদন অনুমোদন করা হয়। সেই প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য পাওয়া গেছে।

আর্থিক প্রতিবেদনের তথ্য অনুযায়ী, চলতি বছরের প্রথম তিন মাসে স্কয়ার ফার্মা ১ হাজার ৯৮১ কোটি টাকার ব্যবসা বা আয় করেছে। তার বিপরীতে মুনাফা করেছে ৪৭২ কোটি টাকা। সেই হিসাবে আয়ের ২৪ শতাংশই মুনাফা করেছে কোম্পানিটি। গত বছরের প্রথম তিন মাসে কোম্পানিটি ১ হাজার ৮৩৩ কোটি টাকার ব্যবসা করেছিল। তার বিপরীতে মুনাফা করেছিল ৪২৫ কোটি টাকা। ওই বছর স্কয়ার ফার্মা তাদের আয়ের ২৩ শতাংশই মুনাফা করেছিল।

জানতে চাইলে স্কয়ার ফার্মার নির্বাহী পরিচালক (ফিন্যান্স অ্যান্ড স্ট্র্যাটেজি) মো. জাহাঙ্গীর আলম বলেন, অর্থনীতির চলমান বাস্তবতার মধ্যেও মুনাফায় দুই অঙ্কের প্রবৃদ্ধিতে আমরা বেশ খুশি। তবে আমাদের বিক্রি বা আয়ে যে প্রবৃদ্ধি হয়েছে, মুনাফা সেই গতিতে প্রবৃদ্ধি হয়নি। এর বড় কারণ উৎপাদন খরচ বেড়ে যাওয়া। খরচ যতটা বেড়েছে ওষুধের দাম ততটা বাড়েনি। তাই আমরা পরিচালন মুনাফা বৃদ্ধির যে প্রত্যাশা করেছিলাম, সেটি হয়নি।

চলতি বছরের প্রথম তিন মাসে স্কয়ার ফার্মা যে মুনাফা করেছে তাতে শেয়ারপ্রতি আয় বা ইপিএস বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৫ টাকা ৫৫ পয়সা। গত বছরের একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ৪ টাকা ৮৩ পয়সা। আর গত জুলাই–মার্চ অর্থাৎ অর্থবছরের ৯ মাস শেষে ইপিএস বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৮ টাকা ২৪ পয়সা। গত অর্থবছরের একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ১৬ টাকা ৮২ পয়সা।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, কর্তৃপক্ষ এর দায়ভার নেবে না।

top