সকল মেনু

ঘুরে দাঁড়ালো বাজার, তিন খাতের শাসন

স্টাফ রিপোর্টার: বস্ত্র, বীমা এবং বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতের প্রভাবে পুঁজিবাজারে রোববারের ন্যায় অব্যাহত রইল উত্থান। বিনিয়োগকারীর মাঝে সঞ্চার হতে লাগল টেকসই এবং নিরাপদ বিনিয়োগের আশা। শেয়ারদর আর লেনদেনের আধিক্যতায় বৃদ্ধি পায় সব সূচক।

দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) সোমবার (১ আগষ্ট/২০২২) প্রধান সূচক বাড়ে ৩০ পয়েন্ট। অপর পুঁজিবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জেও (সিএসই) উত্থানের চিত্র বিদ্যমান। সিএসইতে সোমবার ১৩৬ পয়েন্ট বাড়ে সার্বিক সূচক।

ডিএসইতে সোমবার সব সূচক বেড়েছে। পাশাপাশি, বেড়েছে বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার লেনদেন ও ইউনিট দর। এরমধ্যে, বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতের শতভাগ শেয়ারের দাম বেড়েছে। আর, বেড়েছে বস্ত্র ও বীমা খাতের অধিকাংশ শেয়ারের দাম। -যেকারণে পুঁজিবাজারে ভেসে ওঠে উত্থানের চিত্র।

ডিএসইতে সোমবারের ওয়েব পেইজ পর্যবেক্ষণে দেখা যায়- এদিন ৩৮২টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এরমধ্যে দর বেড়েছে ২০৩টি কোম্পানির। কমেছে ১০২টি প্রষ্ঠিানের শেয়ারদর। আর, দর অপরিবর্তিত ছিল ৭৭টি কোম্পানির।

পুঁজিবাজারে তালিকাভূক্ত এসব কোম্পানির ২৫ কোটি ৬৩ লাখ ৩১ হাজার ২৪০টি শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এতে মোট ৯২১ কোটি ৭৩ লাখ ৪৪ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। আগের দিন রোববার (৩১ জুলাই/২০২২) লেনদেন হয়েছিল ৫৬৭ কোটি ৯৫ লাখ ৯৪ হাজার টাকার শেয়ার।

তিন খাতের দাপটসহ অধিকাংশ কোম্পানির শেয়ারদর বাড়ায় সোমবার ডিএসইতে প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ৩০ পয়েন্ট বেড়ে ৬ হাজার ১৬৩ পয়েন্টে দাঁড়ায়। ডিএসইএস সূচক ৭ দশমিক ৬০ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়ায় ১ হাজার ৩৩৯ পয়েন্টে। আর, ডিএস-৩০ সূচক ১০ পয়েন্ট বেড়ে ২ হাজার ২০৪ পয়েন্টে দাঁড়ায়।

এদিন ডিএসইতে বেক্সিমকো লিমিটেডের শেয়ার লেনদেনের শীর্ষে ছিল। এরপর ছিল ফরচুন সুজ, সোনালী পেপার, ইন্ট্রাকো, স্কয়ার টেক্সটাইল, জেএমআই হসপিটাল, কেডিএস এক্সেসরিজ, শাইনপুকুর সিরামকি, এসস্কোয়ার নিটিং কম্পজিট এবং মতিন স্পিনিং লিমিটেডের শেয়ার।

আবার, অপর পুঁজিবাজার সিএসইতেও সোমবার উত্থানে ছিল সূচক ও লেনদেন। এদিন সিএসইতে শেয়ার লেনদেন হয়েছে ২৮৬টি প্রতিষ্ঠানের।  এর মধ্যে দর বেড়েছে ১৭৫টি প্রতিষ্ঠানের। শেয়ারদর কমেছে ৩৯টির। আর,  অপরিবর্তিত ছিল  ৭২টি কোম্পানির শেয়ারদর।

সিএসইতে সোমবার লেনদেন হয়েছে ১৮ কোটি ৪৪ লাখ ৯১ হাজার ২৩২ টাকার শেয়ার। এর আগেরদিন রোববার লেনদেন হয়েছিল ১২ কোটি ৩৫ লাখ ৯৮ হাজার ২১৫ টাকার শেয়ার। এরফলে সিএসইতে সার্বিক সূচক ১৩৬ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়ায় ১৮ হাজার ১১২ পয়েন্টে।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, কর্তৃপক্ষ এর দায়ভার নেবে না।

top