সকল মেনু

শেয়ার মানি ডিপোজিটের বিপরীতে শেয়ার ইস্যু করেনি এসএস স্টিল

স্টাফ রিপোর্টার: ফাইন্যান্সিয়াল রিপোর্টিং কাউন্সিলের (এফআরসি) নির্দেশনা অনুসারে শেয়ার মানি ডিপোজিটের অর্থ পাওয়ার ছয় মাসের মধ্যে শেয়ার ইস্যু করতে হবে। কিন্তু পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ইস্পাত খাতের কোম্পানি এসএস স্টিল লিমিটেড এফআরসির এ নির্দেশনা লঙ্ঘন করে শেয়ার মানি ডিপোজিটের বিপরীতে শেয়ার ইস্যু করেনি।

সর্বশেষ ৩০ জুন সমাপ্ত ২০২২ হিসাব বছরের নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছেন কোম্পানিটির নিরীক্ষক আশরাফ উদ্দিন অ্যান্ড কোম্পানি। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

নিরীক্ষক তার মতামতে জানিয়েছেন, ২০২২ হিসাব বছরের আর্থিক প্রতিবেদনে ৫৩ কোটি ৭৬ লাখ টাকা শেয়ার মানি ডিপোজিট হিসেবে দেখানো হয়েছে। এর আগের ২০২১ হিসাব বছরে এর পরিমাণ ছিল ৪০ কোটি ৩০ লাখ টাকা। ফাইন্যান্সিয়াল রিপোর্টিং অ্যাক্ট (এফআরএ) ও এফআরসির নির্দেশনা অনুসারে, এসএস স্টিল একটি পাবলিক ইন্টারেস্ট এনটিটি (পিআইই)। আর পিআইই হিসেবে শেয়ার মানি ডিপোজিটকে ছয় মাসের মধ্যে শেয়ারে রূপান্তর না করে এসএস স্টিল এফআরসির নির্দেশনা লঙ্ঘন করেছে।

২০২০ সালের ফেব্রুয়ারিতে এফআরসির জারি করা নির্দেশনা অনুসারে, শেয়ার মানি ডিপোজিট হিসেবে রাখা অর্থ কোম্পানির মূলধন বা ইকুইটি থেকে কোনোভাবেই প্রত্যাহার বা ফেরত নেয়া যাবে না। এই শেয়ার মানি ডিপোজিট হিসেবে প্রাপ্ত অর্থের বিপরীতে ছয় মাসের মধ্যে শেয়ার ইস্যু করতে হবে এবং শেয়ার ইস্যুর আগ পর্যন্ত শেয়ার মানি ডিপোজিটকে সম্ভাব্য শেয়ার হিসেবে বিবেচনা করে শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হিসাব করতে হবে। পিআইই বা জনস্বার্থ সংস্থাগুলোর জন্য শেয়ার মানি ডিপোজিটের বিপরীতে শেয়ার ইস্যু করা বাধ্যতামূলক।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে এস এস স্টিলের কোম্পানি সচিব মো. মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, ‘‌সালেহ স্টিলকে অধিগ্রহণের সময় এস এস স্টিলের পরিচালকরা কোম্পানিকে সালেহ স্টিলের শেয়ার কেনার জন্য টাকা দিয়েছিলেন। মূলত এটিই আর্থিক প্রতিবেদনে শেয়ার মানি ডিপোজিট হিসেবে দেখানো হয়েছে।

বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) কাছে আমরা শেয়ার ইস্যুর জন্য আবেদন করব। অনুমোদন পেলে সে অনুসারে শেয়ার ইস্যু করা হবে। আর যদি অনুমোদন না পাওয়া যায় তাহলে সেক্ষেত্রে এফআরসির নির্দেশনা ও কোম্পানি আইন অনুসারে যা করণীয় সেটি করা হবে।’

সর্বশেষ ৩০ জুন সমাপ্ত ২০২১-২২ হিসাব বছরে শেয়ারহোল্ডারদের জন্য মোট ১০ শতাংশ লভ্যাংশের সুপারিশ করেছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত এসএস স্টিল লিমিটেডের পর্ষদ। এর মধ্যে ২ শতাংশ নগদ ও ৮ শতাংশ স্টক লভ্যাংশ রয়েছে। আলোচ্য হিসাব বছরে এসএস স্টিলের শেয়ারপ্রতি সমন্বিত আয় (ইপিএস) হয়েছে ১ টাকা ৮৭ পয়সা। আগের হিসাব বছরের একই সময়ে যা ছিল ২ টাকা ৩১ পয়সা।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, কর্তৃপক্ষ এর দায়ভার নেবে না।

top