সকল মেনু

নিট মুনাফা ও ব্যবসা হারাচ্ছে এমএল ডায়িং

সিনিয়র রিপোর্টার: ২০১৮ সালে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হয় বস্ত্র খাতের কোম্পানি এমএল ডায়িং লিমিটেড। এর এক বছর পর থেকে প্রতি বছর ধারাবাহিকভাবে ব্যবসা হারাচ্ছে কোম্পানিটি। আলোচ্য বছরগুলোতে কোম্পানিটির বিক্রি কমার পাশাপাশি কর-পরবর্তী নিট মুনাফাও কমেছে।

এমনকি চলতি ২০২২-২৩ হিসাব বছরের প্রথমার্ধে (জুলাই-ডিসেম্বর) আগের বছরের একই সময়ের তুলনায় কোম্পানিটির রপ্তানি আয় কমার পাশাপশি নিট মুনাফা অর্ধেকে নেমেছে।

কোম্পানির আর্থিক প্রতিবেদন বিশ্লেষণে দেখা যায়, ২০১৯-২০ হিসাব বছর থেকে ধারাবাহিক ব্যবসা কমছে এমএল ডায়িংয়ের। আলোচ্য হিসাব বছরে কোম্পানিটির বিক্রি হয়েছে ২৩৮ কোটি ৮৫ লাখ টাকা। এর আগের হিসাব বছরে এ বিক্রি ছিল ২৪৬ কোটি ৮৪ লাখ টাকা। এক বছরের ব্যবধানে কোম্পানিটির বিক্রি কমেছে ৭ কোটি ৯৯ লাখ টাকা বা ৩ দশমিক ২৪ শতাংশ।

আলোচ্য হিসাব বছরে কোম্পানিটির কর-পরবর্তী নিট মুনাফা হয়েছে ২০ কোটি ১৩ লাখ টাকা। এর আগের হিসাব বছরের একই সময়ে এ মুনাফা ছিল ১৯ কোটি ৬৬ লাখ।

আলোচ্য হিসাব বছরের ধারাবাহিকতায় এক বছর পর অর্থাৎ ২০২০-২১ হিসাব বছরে কোম্পানিটির বিক্রি ৪৪ কোটি ৭৬ লাখ টাকা কমে হয়েছে ১৯৪ কোটি ৮ লাখ টাকা। অর্থাৎ এক বছরের ব্যবধানে কোম্পানিটির বিক্রি কমেছে ১৮ দশমিক ৭৪ শতাংশ।

আলোচ্য হিসাব বছরে কোম্পানিটির কর-পরবর্তী নিট মুনাফা হয়েছে ১৪ কোটি ৩৫ লাখ টাকা। এ মুনাফা আগের বছরের তুলনায় ৫ কোটি ৭৮ লাখ টাকা বা ২৮ দশমিক ৬৯ শতাংশ কম।

সর্বশেষ ২০২১-২২ হিসাব বছরে কোম্পানিটির বিক্রি আগের বছরের থেকে ১৪ দশমিক ৬৭ শতাংশ কমে হয়েছে ১৬৫ কোটি ৬১ লাখ টাকা। টাকার অংকে এক বছরের ব্যবধানে কোম্পানিটির বিক্রি কমেছে ২৮ কোটি ৬৭ লাখ টাকা। আলোচ্য হিসাব বছরে কোম্পানিটির কর-পরবর্তী নিট মুনাফা হয়েছে ১০ কোটি ১ লাখ টাকা।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, কর্তৃপক্ষ এর দায়ভার নেবে না।

top